আইটি, কম্পিউটার, ডিজিটাল মার্কেটিং ও প্রোগ্রামিং বই Pdf Download

(৫টি) ফটোশপ শেখার বাংলা বই Pdf Download

আমরা অনেকেই আছি যারা নতুন ফটোশপের কাজ শিখতেছি এমন অবস্থায় আমাদের জন্য টিউটোরিয়ালের পাশাপাশি কিছু ভালো মানের বইয়ের দরকার পড়ে। এই জন্য আজকে আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি ফটোশপ শেখার কিছু গুরুত্বপূর্ণ  ফটোশপ সিসি টিউটোরিয়াল পিডিএফ বইয়ের ডাউনলোড লিংক।  Bangla Photoshop PDF Book Free Download –

 

Photoshop PDF Book DOWNLOAD  ১

ফটোশপ টিউটোরিয়াল বই pdf 2 

ফটোশপ বাংলা টিউটোরিয়াল বাকি বই লিংক শীঘ্রই যুক্ত করতেছি।
book ফটোশপের এ টু জেড বাংলা টিউটোরিয়াল (ডিভিডি)
Company ক্রিয়েটিভ পাঠশালা
categorys ফটোশপ সিসি টিউটোরিয়াল পিডিএফ
Country Bangladesh
language, format Bangla, pdf download ( পিডিএফ ডাউনলোড)

আরও পড়ুনঃ
বই: উড়ে যাওয়ার দিন
ধরন: মনস্তাত্ত্বিক সামাজিক উপন্যাস

“একাকীত্ব বা নিঃসঙ্গতা এমন এক রোগ যেখানে জীবনের মৌলিক চাহিদাগুলো আর ডালপালা মেলার অনুপ্রেরণা পায়না।”

একাকীত্বে যারা ভুগেছেন তারা জানেন এ কথাটা কতটুকু সত্যি। যে ব্যক্তি একাকীত্ব বয়ে বেড়াচ্ছেন, সেখানে মৌলিক চাহিদাগুলো কতটা নস্যি তা ঐ ব্যক্তিই বুঝতে পারবেন।
এই একাকীত্ব বা নিঃসঙ্গতাকে মূল উপজীব্য করে লেখক রবিউল হক বক্সী লিখেছেন তাঁর প্রথম মনস্তাত্ত্বিক উপন্যাস ‘উড়ে যাওয়ার দিন’।
কাহিনী সংক্ষেপ:
দিনাজপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় রিঅ্যাডমিশন সংক্রান্ত সমস্যায় পড়ে বিন্তির সঙ্গে পরিচয় হয় ছেলেটির। ক্রমে বন্ধুত্ব থেকে ভালোবাসা জন্মালো। পরের বছর ছেলেটা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়ে ময়মনসিংহে চলে গেলো। আর এখানে এসে সে পেলো রিথিকে। রিথিকে প্রবলভাবে ভালোবাসতে গেলেই চোখের সামনে এসে দাঁড়ায় বিন্তির স্মৃতি।
একজন মানুষকে ভুলার জন্য কি আরেকজনকে ভালোবাসা যায়? কিংবা একইসাথে কি দুজনকে ভালোবাসা যায়? ছেলেটি এখন কী করবে? দুজনকে ভালোবাসবে? এমনই জটিল এক সম্পর্কের সমীকরণ এগিয়ে যায় ‘উড়ে যাওয়ার দিন’ এ।
মূল আলোচনা ও পাঠ প্রতিক্রিয়া:
পুরো বইটির প্রতিক্রিয়া যদি এককথায় বলতে হয় তাহলে আমি বলবো “বিষন্ন সুন্দর।” কী ভাবছেন? বিষন্ন আবার সুন্দর হয় কীভাবে? সেটা আপনি বইটি পড়লেই বুঝতে পারবেন।
বইটি পড়তে পড়তে চলে গিয়েছিলাম এক বিষন্নতার জগতে; কিন্তু অদ্ভুত ব্যাপার হচ্ছে এ জগত থেকে বের হতে ইচ্ছে করছিলো না। বিষন্নতারও যে এতো প্রবল মায়া থাকতে পারে, কে জানতো? আমার চারপাশটা শূন্য, আমি জানি এখানে পাওয়ার কিছু নেই। তারপরও এই শূন্যতার প্রতি মায়া, শূন্যতা ছেড়ে যাওয়ার মায়া- বইটি আমাকে পরপর দুইবার পড়তে বাধ্য করেছে।
সাধারনত আমি নতুন কোনো বই এক বসায় শেষ করে তারপর আরেকটি বই পড়ি। কিন্তু এই বইটি আমি এক বসায় শেষ করতে পারছিলাম না। বইটি শেষ হয়ে যাওয়ার মায়া আমাকে ঘিরে ধরেছিলো। তাইতো একবার শেষ হওয়ার পর আবারও পড়লাম। আর প্রতিবারের পড়াতেই মনে হচ্ছিলো নতুন কিছু যেনো আবিষ্কার করলাম।
উপন্যাসের কাহিনী মনে হতে পারে খুব সাধারণ। কিন্তু এই সামান্য গল্পকে কীভাবে জটিল মনস্তত্ত্ব দিয়ে এভাবে ফুটিয়ে তোলা যায় সেটা রীতিমতো আমাকে মুগ্ধ করেছে। সবচেয়ে ভালো লেগেছে লেখকের বর্ণনাভঙ্গি।
বিন্তির বর্ণনায় বারবার উঠে এসেছে সরিষা ক্ষেতের কথা। ছেলেটির সাথে সাথে আমিও হলুদ কিছু দেখলেই যেনো চোখের সামনে দেখতাম বিন্তিকে। আর রিথি- যে ছিলো আমার সবচেয়ে পছন্দের চরিত্র। প্রায় অনেকাংশেই নিজের সাথে মিল পাচ্ছিলাম। স্পষ্টবাদী মেয়েটির চরিত্র শেষ পর্যন্ত আমাকে মুগ্ধ করেছে। রিথি প্রসঙ্গে লেখকের একটা লাইন উদ্ধৃত করছি, “কিছু মেয়ে এমন থাকে কাউকে খুন করার পরও হাত থেকে ছুরি ফেলে দেয় না। এমন দৃঢ়তায় ছুরিটা আঁকড়ে ধরে যে শ্যামলা শরীর থেকে ব্যক্তিত্বের দ্যুতি ছড়িয়ে পড়ে চারদিকে।”
আর যে চরিত্রটি এই দুটি মেয়েকে এক সুতোয় নিয়ে আসতে চেয়েছিলো সেই ছেলেটিকে আমার মনে হয়েছে মনস্তাত্ত্বিক জটিলতায় সিদ্ধান্তহীনতায় ভোগা এক যুবক। কখনো দেখিয়েছে সে প্রচন্ড সাহস আবার কখনও সাহসের অভাবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজই করতে পারেনি।
এছাড়া স্বল্প সময়ের উপস্থিতিতে বাকি চরিত্রগুলোও লেখক খুব সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন। কোথাও কম বেশি মনে হয়নি।
উপন্যাসের ভূমিকায় লেখক লিখেছেন “কোনো একটা উপন্যাস দশ বছর মাথায় নিয়ে বয়ে বেড়ানো অনেক কষ্টের।” আর উপন্যাসটি শেষে আমার মনে হচ্ছে এই উপন্যাস শুধু দশ বছর না, আজীবনের জন্য আমার মাথায় ঢুকে গেলো। এক ধূসর নীলাভ শূন্যতায় আচ্ছন্ন হয়ে থাকবো, বারবার পড়ে হৃদয়ের দহনে হয়তো আরও গভীরে যাবো। কিন্তু এ শূন্যতা থেকে আমি ফিরবো না।
তবে বইটির কয়েক জায়গায় ১৮+ বেশ কিছু বর্ণনা ছিলো। পড়ার আগে এটা মাথায় রেখে পড়বেন। সত্যি বলতে এটা আমার ভালো লাগে নি। যদিও সেটা উপন্যাসের প্রয়োজনেই এসেছে, তারপরও মনে হয়েছে লেখক হয়তো এ ব্যাপারে আরেকটু দৃষ্টি দিতে পারতেন। আর অপ্রাপ্তবয়স্কদের এড়িয়ে যাওয়া উচিত বলে মনে করছি।
এছাড়া বরাবরের মতোই ভূমি প্রকাশের বইয়ের প্রচ্ছদ, বাঁধাই, বানান সবকিছুই ছিলো ঠিকঠাক।
প্রিয় লাইন:
ফটোগ্রাফি শেখার বই ফ্রি ডাউনলোড এতো এতো পছন্দের লাইন যে, সবগুলো লিখতে গেলে বিশাল হয়ে যাবে। তাই অল্প কয়েকটা লিখছি।
১. সময় সবার প্রেমিক অথবা প্রেমিকার মতো, অনিবার্যভাবে সময়ের সাথে সবার সাংসারিক বা বিরহের সম্পর্ক।
২. ফেলে আসা জীবনে সত্যি এমন কিছু আশ্চর্যরকমের সুখ আছে যা হয়তো আমাকে চিরদিন ব্যথাই দিয়ে যাবে।
৩. যখন তোমার খারাপ লাগবে আকাশের দিকে তাকাবে। তবে সেটা হতে হবে সুনীল আকাশ। মেঘলা দিনে মন খারাপ হলে বৃষ্টিতে ভিজবে।
তো বন্ধুরা, এডোবি ফটোশপ এর বই pdf গুলো কেমন লেগেছে তা জানাতে ভুলবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also
Close
Back to top button
error: Content is protected !!