Books

মানিক বন্দ্যোপাধ্যায় এর ছোট গল্প Pdf download – দিবারাত্রির কাব্য pdf

মানিক বন্দ্যোপাধ্যায় এর ছোট গল্প pdf free download –

বই: দিবারাত্রির কাব্য
লেখক: মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়
মূল্য: ১৫০
পৃষ্টা: ৯৬
এমন কড়া মনস্তাত্ত্বিক আর বিশ্লেষণধর্মী বই আগে পড়েছি বলে মনে হয় না।
বইটি তিনটি ভাগে বিভক্ত।
১ম ভাগ:দিনের কবিতা; ২য় ভাগ: রাতের কবিতায় এবং ৩য় অর্থাৎ শেষ ভাগ এই দুইয়ের মিশ্রণ: দিবা রাত্রির কাব্য। প্রতিটি ভাগের শুরুতে বেশ কিছু লাইনের কবিতা আছে, সেগুলোও চরিত্র রূপকস্বরূপ।
বইয়ের চরিত্রগুলোকে সরাসরি মানুষ হিসেবে না ধরে যদি চরিত্রদের মন হিসেবে ধরি তাহলে আমার মতে ব্যাপারটা আরেকটু সহজ হয় (সুবিধার্থে মনকে আবার পাখির সাথে তুলনা করা হলো)। মন! বড্ড বেশি চঞ্চল। মন পাখি কি আর এক গাছে বাসা বাঁধতে চায়? বাসাটা পুরোনো হলে তো পাখি অন্য আরেকটা নির্ভরযোগ্য বাসার খোঁজে বেরোয়। আরেকটা পেলে তো ভালো না পেলে দীর্ঘ পথ চলতে হবে আর কি!
১ম ভাগঃ
এই দিনের ভাগে দুটি অতৃপ্ত আর অশান্ত মনের বেখেয়ালি কর্মকান্ড দেখানো হয়েছে, যা নিতান্তই সব সময় সত্য। সুপ্রিয়া হেরম্ব’দার প্রেমে পড়েছিল। যোগ দিয়েছিল হেরম্ব নিজেও।কিন্তু ঐ যে মন পাখি,একটা বাসায় তো থাকলো অনেকদিন আর কত। নাহ! এখানে থাকা চলবে না। এতে করে মন পাখি নিজেও নিস্তেজ আর বাসাটাও হয়তো এই অবহেলার সুযোগে কবে ভেঙে পড়ে! কাজেই হেরম্ব নিজ দায়িত্বে বুঝিয়ে শুনিয়ে সুপ্রিয়াকে অশোক নামের এক দারোগার বউ করে পাঠিয়ে দিলেন। স্বামীর প্রতি অবহেলা না থাকা সত্ত্বেও সুপ্রিয়ার মন পড়ে রইল হেরম্বের জন্য, অতৃপ্ত হয়ে!
২য় ভাগঃ
রাতের ভাগ এটা। সুপ্রিয়ার বিয়ের ৫ বছর পর যখন হেরম্ব জানতে পারে সুপ্রিয়া আজও আশায় আছে। সে সুপ্রিয়াকে পর্যুদস্ত করে চলে আসে পুরীর দিকে। চঞ্চলচিত্তের হেরম্ব দেখা পায় মালতী আর মাস্টারমশাই অনাথের। অনেক বছর আগে এরা ভালবেসে ঘর ছেড়েছিল তখন হেরম্ব কেবল ১২তে পা দিয়েছে। হেরম্বের মনে হয়েছিল প্রেম ভালোবাসা এমনও হয়!? কিন্তু স্বচক্ষে সে দেখলো অন্য রূপ। ভালোবাসা যে ফুরিয়ে যায়! নিঃশেষ হয়ে যায়! তাহলে এই যে পাখিরা নীড় বাধে? একসাথে থাকার কথা! – ভালোবাসা ফুরালে সে তো অভ্যস্ততা। এরই মাঝে মালতী-বৌদির মেয়ে আনন্দকে দেখে হেরম্বের মন কেমন যেন অজানা উত্তেজনা আর আবেগে দিশেহারা হয়ে যায়। দুজন দুজনার প্রেমে পড়ে যায় তারা।রাতের বেলায় আনন্দের চন্দ্রকলা নাচ যেন তাকে নতুন করে শেখায়।
৩য় ভাগঃ
এবার দিন আর রাতের দুই প্রিয়ার সাক্ষাত। আনন্দ আর সুপ্রিয়া নিজেরা নিজেদের দেখেই সব বুঝতে পারে। তারপরও সুপ্রিয়া নিজের মনে নিজেই কাহিনী আটে যে হেরম্ব এখনও তারই আছে! আগের মতোন! ওদিকে আনন্দের মা বাবার ভালোবাসা সরে গিয়ে যে অভ্যস্ততা ছিল তারও পর্দা পড়ে যায়। শান্তির খোঁজেই হয়তো শেষটায় নিরুদ্দেশ হয়!!আর হেরম্ব! সে বড় অস্থির আর ব্যাকুল হয়ে পড়ে। সবকিছু ছেড়ে আসা সুপ্রিয়াকে ফিরিয়ে দিয়ে বিব্ধস্ত হয়ে আনন্দের কাছে আসার চেষ্টায় থাকে। কিন্তু ওদিকে আনন্দের মন যে বড্ড বেশি অশান্ত হয়ে আছে। এই হেরম্বই তাকে বুঝিয়েছিল ভালোবাসা চিরদিন থাকে না, মরে যায়।আর আনন্দ আর চিত্তকে শান্ত করতেই হেরম্বকে দেখিয়ে দেয় পরীনৃত্য রূপে মন আর প্রাণের নিশ্চল-স্থিরতা! মন পাখি আর কোথাও ছুটবে নাহ।
উপরোক্ত সকল চরিত্রের দেখা অতি সহজেই মেলে, আমাদেরই আশে-পাশে।
এই মনের এত্ত দ্বিধাদ্বন্দ্ব ! মন নিজের খেয়াল খুশি মতো সব ভেবে নিয়ে আপন জগৎ বানিয়ে বসে থাকে, ভালো না লাগলে ভিন্ন জগৎ। ব্যাপারটা এমন যে, ধরুন সামনে ইন্দুর ক্রাশ ছেলেটি বসে আছে।ইন্দুর পাশেই বিন্দু বসে আছে ।ছেলেটি হাসলো বিন্দুকে দেখে আর ওদিকে ইন্দু ধরে নিলো ক্রাশ তাকে দেখেই হেসেছে; সুতরাং সে মজেছে 🙂
এই যে হেরম্ব এত ছুটলো, এত চেষ্টা করলো। আদৌ কি শান্তি পূর্ণ নীড় সে পেয়েছে। এত্ত বিশ্লেষণ! আগেই ভালোবাসাকে মৃত মনে করে দাফন করে, দার্শনিকের ভান ধরে কি মিলেছে শেষে?কি দরকার বাপু জীবনে এত দর্শনশাস্ত্র এনে? এই সুন্দর জীবনটা একটু ধৈর্য্য ধরে উপভোগ করলে হয় না? এত বিবাগী হওয়ার কারণ তো দেখি নাহ!

প্রাগৈতিহাসিক

 

সিঁড়ি

সরীসৃপ

কুষ্ঠ-রোগীর বউ

সমুদ্রের স্বাদ

আজ কাল পরশুর গল্প

হারানের নাত জামাই

ছোট বকুলপুরের যাত্রী

Book :  Manik Bandyopadhyay Bengali Short Story PDF
Size- 16 MB

মানিক বন্দ্যোপাধ্যায় এর ছোট গল্প Pdf download link:-

Download Now

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
error: Content is protected !!